খুলনার এক কিশোরীকে ভারতে ৪ বার বিক্রি হয়

স্টাফ রিপোর্টার:: ভারতের গুজরাট রাজ্যের সুরত শহরের একটি স্পা সেন্টার থেকে ১৪ বছর বয়সী এক বাংলাদেশি কিশোরীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। তার সঙ্গে পাঞ্জাবের ১৯ বছর বয়সী আরেক তরুণীকে উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার সুরত পুলিশের মানবপাচার বিরোধী সেল অভিযান চালিয়ে তাদের উদ্ধার করে বলে টাইমস নাও জানিয়েছে। ভারতীয় এই সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে স্পা সেন্টারের মালিকসহ তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

স্পা সেন্টারের দুই মালিকের নাম বিজয় পাঘরা ও মানসুখ কাঠিরিয়া। তাদের সঙ্গে ধরা পড়েছেন ম্যানেজার বিশাল ভানখেদে। পুলিশ বলছে, বাংলাদেশি ওই কিশোরীর বাড়ি খুলনা জেলায়। দুই বছর আগে তাকে ভারতে পাচার করা হয়।

এই সময়ের ভেতর তাকে চারবার বিক্রি হতে হয়েছে বলে জানিয়েছে ভুক্তভোগী ওই কিশোরী। পুলিশকে সে জানিয়েছে, তার গ্রামেরই এক লোক তাকে অপহরণ করে ভারতে নিয়ে যায়। সেই ব্যক্তি তাকে বেঙ্গালুরুর মিলন নামের একজনের কাছে বিক্রি করে। সেখানে কয়েক দিন রেখে তাকে পাঠানো হয় মুম্বাইয়ের নিতু নামের এক নারীর কাছে। নিতু তাকে আবার বিক্রি করে দেন গুজরাটের সাব্বির আলম নামের আরেক ব্যক্তির কাছে। সেখান থেকে ৫০ হাজার রুপিতে তাকে কিনে নেন মানসুখ কাঠিরিয়া।

সুরত পুলিশের অপরাধ শাখার সহকারী কমিশনার আর আর সারভাইয়া জানিয়েছেন, বাংলাদেশি মেয়ের বাবা দুই বছর আগে মহসিন নামের একজনকে অভিযুক্ত করে খুলনা জেলা পুলিশের কাছে মামলা করেন। মেয়েটিকে তিনদিন আগে সুরতে আনা হয়েছে। এখানে তাকে যৌন নির্যাতনের শিকার হতে হয়েছে।

তিনি আরও জানান, যারা মেয়েটিকে ভারতে পাচার করেছিল তাদের সন্ধানের জন্য পুলিশ চেষ্টা চলছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Uttorbongo Protidin

Uttorbongo Protidin ।। 24x7upnews.com Covering all latest Breaking, Bangla, Live, International and Entertainment news.