২৫ বছর পরেও কুষ্টিয়ায় উদ্ধার অক্ষত লাশ

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি, উত্তরবঙ্গ প্রতিদিন :: কুষ্টিয়ায় বাড়ি করার জন্য মাটি কাটতে গিয়ে দাফনের ২৫ বছর পরে অক্ষত অবস্থায় নুরুজ্জামান নামে এক ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধার করেছে স্থানীয়রা।

শুক্রবার বিকেলে কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার যদুবয়বা ইউনিয়নের বহলবাড়িয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত নুরুজ্জামান ঐ গ্রামের মৃত মনোহর মিস্ত্রির ছেলে। তিনি পেশায় একজন কাপড় ব্যবসায়ী ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বহলবাড়িয়া গ্রামের আতর আলীর ছেলের নতুন বাড়ি বানানোর জন্য মাটি কাটতে গিয়ে এই মৃতদেহ দেখতে পায় মাটি কাটা শ্রমিকরা। পরে স্থানীয়রা সবাই এসে মৃতদেহ শনাক্ত করে এবং সন্ধায় বহলবাড়িয়া কবরস্থানে পুনরায় দাফন করে।

মৃতদেহ শনাক্ত করে মৃতের মামাতো ভাই সানোয়ার বলেন, নুরুজ্জামান একজন সৎ কাপড়ের ব্যবসায়ী ছিলেন। প্রায় ২৫ বছর আগে ব্যবসায়িক কাজে ঢাকা থেকে বাড়ি ফেরার পথে ডাকাতের কবলে পড়ে ডাকতদল তাকে ধরে কুমারখালী গড়াই নদীর পাড়ে মুখের মধ্যে বিষাক্ত পলিথিন ও গামছা দিয়ে অজ্ঞান করে মালামাল লুট করে ফেলে দিয়ে চলে যায়। পরবর্তীতে খোঁজাখুজির পরে নদীর পাড় থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে প্রায় একমাস পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। পরে বাড়ির পাশের বাগানে দাফন করা হয়েছিল।

বিষয়টি নিশ্চিত করে চৌরঙ্গী তদন্তের কেন্দ্রের ইনচার্জ ইনস্পেক্টর রাকিব হাসান বলেন, মাটি কাটতে গিয়ে ২৫ বছরের পুরানো নুরুজ্জামান নামের এক ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধার করে পুনরায় দাফন করেছে স্থানীয়রা।

তবে লাশটি পুরাপুরি অক্ষত এবং অবিকৃত অবস্থায় ছিল বলে জানান তিনি।

এদিকে ২৫ বছরের পুরানো মৃতদেহ উদ্ধারের খবর ছড়িয়ে পড়লে চাঞ্চল্যকর অবস্থার সৃষ্টি হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Uttorbongo Protidin

Uttorbongo Protidin ।। 24x7upnews.com Covering all latest Breaking, Bangla, Live, International and Entertainment news.