স্টাফ রিপোর্টার,উত্তরবঙ্গ প্রতিদিন::

ভারতীয় এক গোয়েন্দার কাছে তথ্য পাচারের সময় বাংলাদেশি এক যুবককে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। তার নাম মো. মিঠু (৩০)। সে রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার ভারতীয় সীমান্ত লাগোয়া চর আষাড়িয়াদহ ইউনিয়নের চর কানাপাড়া গ্রামের দুলাল হোসেনের ছেলে।
শনিবার সকালে উপজেলার চর আষাড়িয়াদহ ইউনিয়নের সাহেবনগর এলাকা থেকে আটক করা হয়। আজ রবিবার ভ্রাম্যমাণ আদালতে তাকে দুই বছরের সাজা দিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়।
উপজেলার সাহেবনগর সীমান্ত ফাঁড়ির কমান্ডার নায়েক সুবেদার শফিকুল ইসলাম শফিক বিষয়টির সত্যতা স্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, সীমান্তের এপারে বাংলাদেশি লোকজন মাঠে কাজ করছিলেন। ওই সময় সীমান্তের ওপার থেকে কয়েকটি গবাদিপশু নিয়ে এপারে আসছিলেন কয়েকজন রাখাল। মিঠু ওইসব লোকজনের ছবি তুলে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) গোয়েন্দা সংস্থার একজন কর্মকর্তার কাছে ম্যাসেঞ্জারের মাধ্যমে পাঠাচ্ছিলেন। বিষয়টি লোকজন বুঝতে পেরে বিজিবিকে খবর দেন। এরপর তাকে আটক করে ফাঁড়িতে নেয়া হয়।
বিজিবি সূত্র জানায়, মিঠুকে আটকের সময় তার কাছে থাকা দুটি মোবাইল ফোনে ভারতীয় সিমকার্ড সক্রিয় ছিল। আটকের পর মিঠুর মোবাইল ফোনটি সক্রিয় থাকার সময় বিএসএফের একজন গোয়েন্দা কর্মকর্তার ফোন আসে। পরে ফোনটি বন্ধ করে সেটি জব্দ করা হয়েছে। জব্দ করা হয়েছে ভারতীয় সিমকার্ডও। মিঠু প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন, কিছু দিন ধরে সে বিএসএফের গোয়েন্দা কর্মকর্তার এজেন্ট হিসেবে কাজ করছিলেন। বিভিন্ন তথ্য তিনি পাচার করতেন।

নায়েক সুবেদার শফিকুল ইসলাম বলেন, সীমান্তের এপারের বিভিন্ন স্থাপনা, ঘরবাড়ি এবং মানুষের ছবি বিএসএফের কাছে পাঠানোর ঘটনাটি খুবই স্পর্শকাতর। তাই মিঠুকে ব্যাটালিয়ন সদর দফতরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। পরে তথ্য পাচারকারীকে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য রাজশাহী মোবাইল কোর্টে হস্তান্তর করা হয়। সেখানে ভ্রাম্যমাণ আদালত তার দুই বছরের কারাদন্ড দেয়া হয়।
…………………………………………………………………………………………………………………………………………… বি: দ্র:: আপনাদের যে কোনো দুঃখ-দুর্দশার সংবাদ জানাতে পারেন আমাদের, আমাদের সাহসী টিম চলে যাবে আপনার দ্বার প্রান্তে । ধন্যবাদ – প্রয়োজনে :: +৮৮০১৭১৬২০৪২৪৮ upnews24x7.com most google ranking bengali news portal from Bangladesh.

সংবাদটি শেয়ার করুন-
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •