রাজশাহীতে  সাজাপ্রাপ্ত আসামীর পরিবর্তে  জেল খাটছে নির্দোষ সজল মিয়া:উত্তরবঙ্গ প্রতিদিন

স্টাফ রিপোর্টার,উত্তরবঙ্গ প্রতিদিন: আসামি না হয়েও দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) মামলায় পাটকলকর্মী জাহালমের তিন বছর জেল। এই জেল খাটার ঘটনাকে কেন্দ্র করে দেশব্যাপী ব্যাপক সমালোচনার ঝড় চলেছে। অনেটা জাহালমের মতোই রাজশাহীতে একটি মামলায় যাবজ্জীবন সাজা প্রাপ্ত এক পলাতক আসামির পরিবর্তে সজল নামে একজন জেল খাটছেন।

রাজশাহীর আদালত ও আসামি পক্ষের আইনজীবী সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, নগরীর বোয়ালিয়া থানাধীন ছোটবনগ্রাম পশ্চিমপাড়ার তোফাজ উদ্দিনের পুত্র সজল মিয়াকে (৩৪) গত ৩০ এপ্রিল সাজা পরোয়ানা মূলে গ্রেফতার করা হয়। নারী ও শিশু মামলা নং- ৫৩৪/২০০১। সূত্র: শাহ মখদুম থানার মামলা নং- ০৮, তাং-২০/৫/২০০১। ধারা: নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ এর ৬(১)।

আটক সজলের আইনজীবী মোহন কুমার সাহা জানান, অপরাধী না হয়েও সজল সাজা ভোগ করছে। বিষয়টি অবহিত করে সজলকে দায় হতে অব্যাহতির আবেদন জানিয়েছি রাজশাহীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ ট্রাইব্যুনাল-১ নং আদালতে।

গত ২৬ মে বিষয়বস্তু তুলে ধরে আবেদন দাখিল করলে আদালতের বিচারক ১১ জুন আসামিকে আদালতে হাজির করে শুনানীর দিন ধার্য্য করেন।

সংশ্লিষ্ট আইনজীবী ও আদালতের আবেদনে জানা যায়, সূত্রে বর্ণিত মামলার মূল আসামি আটক সজল মিয়ার বড় ভাই সেলিম ওরফে ফজলসহ আরও ৫ জন। আসামি সেলিম ওরফে ফজল মামলা থেকে জামিন পাওয়ার পর পলাতক হয়ে নিখোঁজ রয়েছেন। এই মামলায় আদালত ২০০৯ সালের ২৮ আগষ্ট সেলিম ওরফে ফজলকে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ এর ৬(১) ধারায় যাবজ্জীবন কারাদ-, ৫ হাজার টাকা জরিমানা আনাদায়ে আরও ১ বছর সশ্রম কারাদ- প্রদান করেন এবং অপর আসামিদের খালাস দেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন-
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।