স্টাফ রিপোর্টার,উত্তরবঙ্গ প্রতিদিন:: দেশে ডিজিটাল ও অনলাইন মোবাইল ব্যাংকিং এবং কুরিয়ার সার্ভিসের সব ধরনের আর্থিক লেনদেনে নজরদারি করবে দুর্নীতি দমন কমিশন দুদক)। একই সঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ) ও দুদক সেবাদানকারী নন-ব্যাংকিং বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের আর্থিক লেনদেন সংক্রান্ত যে কোনো ঘটনা অনুসন্ধান করতে পারবে।

দুদক থেকে চলতি সপ্তাহেই দেশের সবকটি মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস ও কুরিয়ার সার্ভিস কোম্পানিকে চিঠি দেয়া হবে। এতে তাদের গ্রাহকদের লেনদেন সংক্রান্ত তথ্যভাণ্ডারে প্রবেশের বিষয়ে সহায়তা চাওয়া হবে।

বিকাশ, রকেট, ইউক্যাশ, নগদ, এসএ পরিবহন, কন্টিনেন্টাল কুরিয়ার সার্ভিস, সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিস, ডাচ্-বাংলা ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংকসহ আরও কিছু প্রতিষ্ঠানে এই চিঠি পাঠানো হবে বলে জানা গেছে। গত ২২ জুলাই অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগে এক যৌথ সভায় মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস ও কুরিয়ার সার্ভিসের লেনদেন সংক্রান্ত বিষয়ে দুদক ও বিএফআইইউ অনুসন্ধান করতে পারবে মর্মে সিদ্ধান্ত হয়। ওই সভায় সভাপতিত্ব করেন আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. আসাদুল ইসলাম। এ বিষয়ে তার সঙ্গে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি  বলেন, আমি ছুটিতে আছি, এখন কথা বলব না। পরে অফিসে তার সঙ্গে যোগাযোগ করার কথা বলেন তিনি।

সূত্র জানায়, ওই সভায় গৃহীত সিদ্ধান্তের অনুলিপি বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর, এনবিআর, বিটিআরসি ও বীমা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব, দুদক সচিবসহ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের এমডি এবং সিইও’কে দেয়া হয়েছে। কিভাবে মোবাইল ব্যাংকিং একটি নিরাপত্তা বলয়ের মধ্যে আনা হবে সে বিষয়ে আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের পক্ষ থেকে তাদের কাছে প্রয়েজনীয় সহায়তা চাওয়া হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন-
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •