বিশেষ বিজ্ঞপ্তি :
সুপ্রিয় সন্মানিত পাঠক, আপনি কি উত্তরবঙ্গ প্রতিদিনের নিয়মিত পাঠক? আপনি কি এই পত্রিকায় লিখতে চান? কেন নয় ? সমসাময়িক যেকোনো বিষয়ে আপনিও ব্যক্ত করতে পারেন নিজের চিন্তা, অভিমত, পর্যবেক্ষণ ও বিশ্লেষণ। স্বচ্ছ ও শুদ্ধ বাংলায় যেকোনো একটি সুনির্দিষ্ট বিষয়ে  লিখে পাঠিয়ে দিতে পারেন ইমেইলে কিংবা ফোন করেও জানাতে পারেন আপনাদের।  আমাদের যে কোন সংবাদ জানানোর ৩টি মাধ্যম।🟥১। মোবাইল: ০১৭৭৭৬০৬০৭৪ / ০১৭১৫৩০০২৬৫ 🟥২। ইমেইল: upn.editor@gmail.com🟥৩। ফেসবুক : facebook.com/Uttorbongoprotidin  

স্টাফ রিপোর্টার,উত্তরবঙ্গ প্রতিদিন :: রাজশাহীতে ছুরিকাঘাতে কলেজছাত্র খুনের ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত বুধবার রাতে গত বুধবার রাতে নগরের ভাটাপাড়া কালিরখা মোড় এলাকায় অভিযান চালিয়ে নিজ বাড়ি থেকে রাকিব হাসান আবিরকে (১৯) গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুস জানান, এক এলাকা থেকে আরেক এলাকায় বান্ধবীদের নিয়ে গিয়ে বসে গল্প করার জের ধরে এ হত্যাকা- ঘটেছে। ইতোমধ্যেই একজন আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মূল আসামিকে ধরতে পুলিশ চেষ্টা চালাচ্ছে বলেন এই পুলিশ কর্মকর্তা।

শাহ মখদুম থানার ওসি মাসুদ পারভেজ বলেন, ফাহিম হোসেন (১৮) খুনের ঘটনায় আসামি করে নিহতের বাবা হত্যা মামলা দায়ের পর অভিযান চালিয়ে একজনকে গ্রেফতার করা হয়।

এ মামলায় রাকিব হাসান আবির ও আযমির হাসানকে (২০) আসামি করা হয়েছে। এর আগে বিকালে শাহ মখদুম থানার পবা নতুনপাড়া এলাকায় ‘চার তরুণ-তরুণীকে আড্ডা দিতে মানা করতে গিয়ে’ ছুরিকাঘাতের শিকার হয়ে মারা যান ফাহিম। এ ছাড়া অপর ছুরিকাহত যুবরাজ (১৯) রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন বলে জানান তিনি। নিহত ফাহিম পবা নতুনপাড়া এলাকার গোলাম হোসেন ছেলে।

আহত যুবরাজের বাড়ি একই এলাকায়। তারা নগরের বরেন্দ্র কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র। হত্যাকা-ের বিবরণ দিতে গিয়ে মাসুদ পারভেজ বলেন, ভাটাপাড়ায় রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ের পেছনে দুই তরুণ এবং দুই তরুণী বসে গল্প করছিলেন। তখন নিহত ফাহিম এবং তার দুই বন্ধু যুবরাজ ও সৈকত তাদের বলেন, ‘এখানে বসে গল্প করা যাবে না।’ এ নিয়ে তাদের মধ্যে কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ে তরুণীদের সঙ্গে বসে থাকা আযমির ছুরি দিয়ে ফাহিম ও যুবরাজকে আঘাত করেন। এ সময় প্রাণভয়ে সৈকত পালিয়ে যান।

পরে স্থানীয় লোকজন ফাহিম ও যুবরাজকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। সন্ধ্যার আগে ফাহিম ও যুবরাজকে হাসপাতালে আনার কথা উল্লেখ করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক সাইফুল ফেরদৌস বলেন, ফাহিমের বুকের বাঁ পাশে ছুরির আঘাতের চিহ্ন ছিল। তিনি রাত ৮টার দিকে মারা যান। তবে যুবরাজ শঙ্কামুক্ত। তার বুকের ডান পাশে আঘাত রয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন-
  • 855
  • 459
  • 301
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1.6K
    Shares


© All rights reserved © 2016-2021 24x7upnews.com - Uttorbongo Protidin Trusted Online Newsportal from Rajshahi, Bangladesh.