স্টাফ রিপোর্টার,উত্তরবঙ্গ প্রতিদিন :: আজ সোমবার সকাল ১১ টার দিকে রাজশাহীতে ব্যবসায়ী খুনের বিচার দাবিতে পুলিশ কমিশনারের অফিস ঘেরাও করেছে স্থানীয় এলাকাবাসী।পুলিশ সুত্রে জানা যায়, রাজশাহী মহানগরীতে মালদা কলোনী ঈদগাহ মাঠ এলাকায় ব্যবসায়ী রাজন শেখ (৩০) খুনের বিচারের দাবিতে পুলিশ কমিশনারের অফিস ঘেরাও করেন স্থানীয় এলাকাবাসী। পরে পুলিশ বিক্ষুদ্ধ এলাকাবাসিকে হত্যাকারীদের দ্রুত সনাক্তের আশ্বাস দিয়ে তাদের সরিয়ে দেন।

জানা যায়, নিহত রাজন শেখ ওই এলাকার আবদুর রাজ্জাক শেখের ছেলে। গত শনিবার রাজন খুন হন। রাজনের মালদা কলোনী ঈদগাহ মাঠ এলাকায় পান-সিগারেটের দোকান ছিল।

এ ঘটনায় দুইজনকে গ্রেপ্তার করে তারা হলেন- মালদা কলোনীর আরমান আলীর ছেলে সোহেল শেখ (৩০) এবং আলিফ শেখের ছেলে আবদুর রহিম শেখ (৪০)। সোহেল সম্পর্কে রহিমের ভাতিজা। সোহেলও একজন ব্যবসায়ী। বিভিন্ন দোকানে তিনি আগরবাতি, মোমবাতি সরবরাহ করতেন। নিহত রাজন তার বন্ধু ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সোমবার বেলা সাড়ে সাড়ে ১১টার দিকে বাবা রাজ্জাক শেখের নেতৃত্বে এলাকাবাসী রাজন হত্যার বিচার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। এরপর মিছিলটি নগরীর শাহ মখম থানা অভ্যন্তরে অবস্থিত পুলিশ কমিশনারের দপতরের সামনে গিয়ে অবস্থান নেয়। এসময় বিক্ষোভকারীরা ভিতরে প্রবেশের চেষ্টা করেন।

তবে, পুলিশ প্রধান ফটক বন্ধ করে দিলে, বিক্ষোভকারী ফটকের সামনেই বিক্ষোভ করতে থাকেন। প্রায় মিনিট দশেক পরে পুলিশ বিক্ষোভকারীদের সেখান থেকে সরিয়ে দেন।

এর আগে শনিবার বেলা ১১টার দিকে রাজনের দোকানে যান সোহেল। এ সময় তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে সোহেল ধারালো অস্ত্র দিয়ে রমজানের তলপেটে আঘাত করে পালিয়ে যান। প্রকাশ্যে অনেক মানুষের সামনেই এই ঘটনা ঘটে। পরে লোকজন গুরুতর আহত রমজানকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় রাজনের মা থানায় মামলা করেছেন। মামলায় সোহেল ও রহিমকে আসামি করা হয়েছে। এছাড়া অজ্ঞাত আরও দুই-তিনজনকে আসামি করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন-
  • 982
  • 543
  • 37
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1.6K
    Shares