স্টাফ রিপোর্টার,উত্তরবঙ্গ প্রতিদিন  :   রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নের (আরইউজে) সাধারণ সম্পাদক তানজিমুল হককে দেখে নেয়ার হুমকি দিয়েছেন রেলওয়ের এক কর্মকর্তা। তার নাম রমজান আলী। তিনি পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের প্রধান প্রকৌশলী ছিলেন। বর্তমানে তিনি খুলনা-মোংলা রেল প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। গত বৃহস্পতিবার রাতে তিনি সাংবাদিক তানজিমুলকে হুমকি দেন।

তানজিমুল হক দৈনিক যুগান্তরের রাজশাহী ব্যুরো অফিসের স্টাফ রিপোর্টার। হুমকি পেয়ে নিজের এবং সাংবাদিকদের ক্ষতির আশঙ্কায় রাজশাহী নগরীর কাশিয়াডাঙ্গা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন তিনি। শুক্রবার সকালে তিনি এই জিডি করেন।

কাশিয়াডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনসুর আলী আরিফ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জিডিতে সাংবাদিক তানজিমুল হক উল্লেখ করেছেন, গত বছরের ১৭ ডিসেম্বর দৈনিক যুগান্তরে ‘রাজশাহীতে নির্যাতন মামলা তুলে নিতে স্ত্রীকে হুমকি, পশ্চিম রেলের সাবেক প্রধান প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে অভিযোগ’ এবং চলতি বছরের ২১ জানুয়ারি ‘ছোট ছোট কাজে অবিশ্বাস্য ব্যয়, পশ্চিম রেলে লুটের সুনামি’ শিরোনামে পশ্চিম রেলের দুটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এরপর থেকেই রমজান আলী বিভিন্নভাবে বিভিন্নজনকে দিয়ে হুমকি দিয়ে আসছেন, যাতে তার আরও দুর্নীতির খবর পত্রিকায় প্রকাশিত না হয়। এরই মধ্যে তার বিরুদ্ধে আরও গুরুতর দুর্নীতির তথ্য হাতে আসায় সাংবাদিকতার নীতিমালা অনুসরণে তার মতামত ও বক্তব্য গ্রহণের জন্য তাকে ফোন করা হয়। কিন্তু রমজান আলী ফোনকলটি ধরেই তাকে ও সাংবাদিক কমিউনিটিকে অকথ্য ও অরুচিকর ভাষায় গালাগালি  শুরু করেন। তাকে স্বাভাবিক অবস্থায় ফেরাতে চেষ্টা করলেও তিনি একপর্যায়ে সাংবাদিক তানজিমুলকে যে কোন উপায়ে দেখে নেয়ার হুমকি দেন। এক পর্যায়ে মামলা করে জব্দ করা হবে বলেও হুমকি দেন তিনি।

কাশিয়াডাঙ্গা থানার ওসি মনসুর আলী আরিফ জিডির বিষয়টি নিশ্চিত করেন। বলেন, নিয়ম অনুযায়ী জিডি রেকর্ড করা হয়েছে। তদন্ত করে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এদিকে সাংবাদিক তানজিমুল হককে হুমকির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে আরইউজে। শুক্রবার দুপুরে আরইউজে সভাপতি কাজী শাহেদ স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে সংগঠনের পক্ষ থেকে এই নিন্দা জানানো হয়। বিবৃতিতে বলা হয়, তানজিমুল হক আরইউজের সাধারণ সম্পাদক। তিনি শুধু একজন সাংবাদিকই নন, সাংবাদিকদের নেতাও। তাকে হুমকি দেয়া সাংবাদিক সমাজ কোনোভাবেই মেনে নেবে না।

বিবৃতিতে এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে হুমকিদাতা রমজান আলীকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানানো হয়। তা না হলে সাংবাদিক সমাজ তার বিরুদ্ধে কঠোর আন্দোলন গড়ে তুলবেন বলেও বিবৃতিতে হুঁশিয়ারি দেয়া হয়। বিবৃতিতে আরইউজের সহসভাপতি শরীফ সুমন, সহ-সাধারণ সম্পাদক সাইফুর রহমান রকি, কোষাধ্যক্ষ সরকার দুলাল মাহবুব ও নির্বাহী সদস্য মিজানুর রহমান টুকু এবং সামাদ খানও এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন-
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •