নগর প্রতিবেদক,:উত্তরবঙ্গ প্রতিদিন:: বিভাগে এখন পর্যন্ত ৮০৯ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনের আওতায় আনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিভাগীয় কমিশনার হুমায়ুন কবীর খোন্দকার। তবে এদের মধ্যে এখন পর্যন্ত কেউ করোনায় আক্তান্ত বা আইসোলেশনে নেয়ার মত নয় বলেও জানান তিনি।

শুক্রবার (২০ মার্চ) সকালে রাজশাহী নগরের সাহেববাজার এলাকায় প্রশাসনের উদ্যোগে করোনায় আতঙ্কিত না হয়ে সতর্ক হবার পরামর্শ দিয়ে সচেতনতা বৃদ্ধিতে সাধারণ মানুষের মাঝে লিফলেট বিতরণকালে তিনি এ তথ্য জানান।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বিভাগীয় কমিশনার বলেন, বৃহস্পতিবার পর্যন্ত রাজশাহী বিভাগে ৮০৯ জন প্রবাসী নিজ এলাকায় ফিরেছেন। এদের মধ্যে ৪০ জনকে ছেড়ে দেয়া হলেও বাকিদের হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়। তবে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে প্রকাশ্যে ঘুড়ে বেড়ানোয় নয়জনকে জরিমানা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ১৮৩ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন।

হুমায়ুন কবীর বলেন, রাজশাহী বিভাগে পর্যাপ্ত খাদ্য মজুদ রয়েছে। চিন্তুর কিছু নেই। তবে কেউ যদি খাদ্য সংকটের কোন ধরনের গুজব ছাড়ায় এবং মজুদ করে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এদিকে, করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ার গুজব ছড়িয়ে সাধারণ মানুষের মনে ভীতি সৃষ্টি করা হলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি একেএম হাফিজ আক্তার।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, করোনা নিয়ে গুজব ছড়ানো হচ্ছে কিনা সেদিকে পুলিশের সতর্ক দৃষ্টি রয়েছে। সভা-সমাবেশ ছাড়াও পারিবারিক অনুষ্ঠানও নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সেটিও পুলিশ দেখছে। এছাড়াও বিদেশ ফেরতরা কোয়ারেন্টাইনে থাকছেন কি-না সেটিও পুলিশ তদারকি করছে।

শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে সাহেববাজার জিরোপয়েন্ট থেকে সোনাদিঘী মোড় হয়ে কাঁচাবাজার পর্যন্ত করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ করেন প্রশাসনের কর্মকর্তারা। এসময় রাজশাহী জেলা প্রশাসক হামিদুল হকসহ প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন-
  • 385
  • 596
  • 284
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1.3K
    Shares