বিশেষ বিজ্ঞপ্তি :
সুপ্রিয় সন্মানিত পাঠক, আপনি কি উত্তরবঙ্গ প্রতিদিনের নিয়মিত পাঠক? আপনি কি এই পত্রিকায় লিখতে চান? কেন নয় ? সমসাময়িক যেকোনো বিষয়ে আপনিও ব্যক্ত করতে পারেন নিজের চিন্তা, অভিমত, পর্যবেক্ষণ ও বিশ্লেষণ। স্বচ্ছ ও শুদ্ধ বাংলায় যেকোনো একটি সুনির্দিষ্ট বিষয়ে  লিখে পাঠিয়ে দিতে পারেন ইমেইলে কিংবা ফোন করেও জানাতে পারেন আপনাদের।  আমাদের যে কোন সংবাদ জানানোর ৩টি মাধ্যম।🟥১। মোবাইল: ০১৭৭৭৬০৬০৭৪ / ০১৭১৫৩০০২৬৫ 🟥২। ইমেইল: upn.editor@gmail.com🟥৩। ফেসবুক : facebook.com/Uttorbongoprotidin  
আজ ১১ মে ২০২১ মঙ্গলবার ৫:২৯ অপরাহ্ন রাজশাহী,বাংলাদেশ ।। ইংরেজীতে পড়ুন উত্তরবঙ্গ প্রতিদিন Bengali Bengali English English

স্টাফ রিপোর্টার,উত্তরবঙ্গ প্রতিদিন রাস্তায় মানুষের সাথে পরিচয় হয়ে নিজেদের বিপদের কথা বলে বিদেশি অর্থ বা সোনর গহনা সন্তান বিক্রির প্রলোভন দেখিয়ে টাকা হাতিয়ে নেয়াই ছিল তাদের পেশা। এভাবে বিভিন্ন মানুষের সাথে প্রতারণার মাধ্যমে বোকা বানিয়ে তারা হাতিয়ে নিয়েছে কোটি টাকা। আর সেই প্রতারক চক্রের ৪ জন সদস্যকে হাতেনাতে গ্রেফতার করেছে রাজশাহী মহানগর (আরএমপি) বোয়ালিয়া থানা পুলিশ।

ভুক্তভোগীর বরাত দিয়ে বোয়ালিয়া থানা কর্তৃপক্ষ জানায়, পাঠানপাড়া এলাকার কামরুল হাসান (৫৮) গত ৯জুলাই দুপুর আড়াইটার দিকে ওষুধ কিনতে যাবার পথে বর্ণলীর মোড়ের পেছনে ‘রয়ের চিটিং গ্রপ’ এর একজন প্রতারক তাকে ১০০ সৌদি রিয়াল হাতে ধরিয়ে দিয়ে মানি চেঞ্জারে ভাঙিয়ে পরের দিন দিতে অনুরোধ করে। কামরুল হাসান ওই রিয়াল পরের দিন সাহেব বাজার জিরো পয়েন্টের কাছে অবস্থিত হাসান মানি চেঞ্জারে গিয়ে ভাঙিয়ে ওই প্রতারক চক্রের সাথে যোগাযোগ করে ও উক্ত অর্থ বুঝিয়ে দেয়। তখন প্রতারক চক্র তাকে ৪০০ টাকা লাভ দেয়।

এর পর প্রতারক চক্রটি আবারো কামরুল হাসানের সাথে যোগাযোগ করে জানায় তাদের কাছে বাংলাদেশি ৩ লক্ষ টাকা সমমূল্যের সৌদি রিয়াল আছে। ১৪ জুলাই তারা কামরুল হাসানকে ৩ লক্ষ টাকা নিয়ে হেতেমখাঁ কলাবাগান এলাকায় আসতে বলে। কথা মতো ৩ লক্ষ টাকা নিয়ে প্রতারক চক্রের হাতে তুলে দেন কামরুল হাসান। বিনিময়ে তারা একটি লাল রঙের গামছয় মোরানো পুটলা ধরিয়ে দিয়ে বলে এতে কাঙ্খিত রিয়াল আছে। কামরুল হাসান বাড়ি ফিরে এসে ওই পুটলা খুলে দেখে তাতে রিয়াল নেই, আছে শুধু খবরের কাগজের ছেড়া টুকরো।

পরবর্তিতে বোয়ালিয়া থানায় অভিযোগ করে ভুক্তভোগী। এর পর ১৬ জুলাই দুপুর তিনটায় প্রতারক চক্রের চারজন সদস্যকে কৌশলে হাতে নাতে গ্রেফতার করে বোয়ালিয়া থানা পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, গোপালগঞ্জ জেলার মোকসুদপুর থানাধীন ঘুনসী মধ্যপাড়া এলাকার আফছার তালুকদারের ছেলে আলমগীর হোসেন (২৯), ঘুনসী দক্ষিনপাড়া এলাকার মৃত ছহেদ সরদারের ছেলে লুৎফর সরদার (৩৫), বামনডাঙ্গা এলাকার মৃত মাজেদ শেখের ছেলে বখতিয়ার হোসেন (৫১) ও ব্যাটক্যামারী এলাকার মৃত গুনজর আলীর ছেলে মিজানুর রহমান (৩২)।

পরে তারা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে পুলিশের কাছে। প্রতারক চক্রটি জানায়, এভাবে তারা এপর্যন্ত বিভিন্ন মানুষের কাছ থেকে এক কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে রাজশাহীসহ দেশের বিভিন্ন থানায় একাধিক প্রতারণার মামলা রয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন-
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


আজ ১৭ জুলাই ২০২০ শুক্রবার ১২:২১ অপরাহ্ন রাজশাহী,বাংলাদেশ ।। ইংরেজীতে পড়ুন উত্তরবঙ্গ প্রতিদিন Bengali Bengali English English
© All rights reserved © 2016-2021 24x7upnews.com - Uttorbongo Protidin