বিজ্ঞপ্তি :
আপনি কি নির্যাতিত ?  আপনি কি সুবিধা বঞ্চিত ? আপনি কি সমাজের কোন অসঙ্গতির শিকার ? তাহলে জানাতে পারেন আমাদের ,আমরা প্রকাশ করব সেই সংবাদ। আমাদের সংবাদ পাঠানোর ইমেইল - upn.editor@gmail.com মোবাইল - ০১৭১৫৩০০২৬৫, ০১৭৭৭৬০৬০৭৪ ফেসবুক - fb.com/Uttorbongoprotidin
জেনে নিন ইসলাম বিভিন্ন ধর্মের দেব-দেবী সম্পর্কে যা বলে

জেনে নিন ইসলাম বিভিন্ন ধর্মের দেব-দেবী সম্পর্কে যা বলে

ইসলাম বিভিন্ন ধর্মের দেব-দেবী সম্পর্কে যা বলে -বিশ্লেষণ

আকাশ থেকে সূর্য নিয়ে এসে আমার হাতে রেখে দেয়, তবুও আমি এ কালেমা ছাড়া অন্য কিছু বলবো না। এভাবে তিনি কুরাইশ সর্দারদের নিরাশ করে দেন। এতে কুরাইশরা অসন্তুষ্ট হয়ে যায়।

কুরাইশদের সিদ্ধান্ত ও আল্লাহর নির্দেশ :

এরপর কুরাইশরা বলেন, হয় আপনি আমাদের উপাস্য প্রতিমাদের মন্দ বলা বিতর হবেন; না হয়- আমরা আপনাকে গালি দেব এবং ওই সত্ত্বাকেও গালি দেব; আপনি নিজেকে যার রাসূল বলে দাবি করেন। কুরাইশদের এ কথার প্রেক্ষিতে এ আয়াত নাজিল হয়-

‘আল্লাহকে ছেড়ে তারা যাদের আরাধনা করে, তোমরা তাদেরকে মন্দ বলো না। তাহলে তারা ধৃষ্টতা দেখাতে গিয়ে অজ্ঞতাবশত আল্লাহকে গাল-মন্দ করবে। এমনিভাবে আমি প্রত্যেক সম্প্রদায়ের দৃষ্টিতে তাদের কাজ-কর্মকে সুশোভিত করে দিয়েছি। অতঃপর স্বীয় পালনকর্তার কাছে তাদের প্রত্যাবর্তন করতে হবে। তখন তিনি তাদের বলে দেবেন যা কিছু তারা করত’। (সূরা : আনআম, আয়াত : ১০৮)

অতঃপর রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তার অনুসারী তথা মুসলিম উম্মাহর উদ্দেশ্যে কোরআনুল কারিমে ঘোষিত দেব-দেবী বা প্রতিমাসমূহকে মন্দ বলার বিষয়টি সুস্পষ্টভাষায় জানিয়ে দিয়েছেন যে, ‘যারা ইসলাম ব্যতিত অন্য ধর্ম অবলম্বন করে, তাদের কিংবা তাদের দেব-দেবী কিংবা উপাস্য প্রতিমাসমূহকে গাল-মন্দ করা যাবে না। যদি কেউ অন্য ধর্মের কাউকে গাল-মন্দ করে তবে তারা আল্লাহ তায়ালাকে গালমন্দ করার ধৃষ্টতা দেখাবে।

সুতরাং ইসলামের নির্দেশনা হলো- অন্য ধর্মের দেব-দেবী, প্রতিমাকে মন্দ বলা যাবে না। এমনকি অন্য কোনো ধর্ম নিয়েও বাড়াবাড়ি করা যাবে না। যেমন দিকনির্দেশনা দিয়েছেন স্বয়ং আল্লাহ তায়ালা।

রাব্বুল আলামিন আল্লাহ তায়ালা বলেন,

لاَ إِكْرَاهَ فِي الدِّينِ قَد تَّبَيَّنَ الرُّشْدُ مِنَ الْغَيِّ فَمَنْ يَكْفُرْ بِالطَّاغُوتِ وَيُؤْمِن بِاللّهِ فَقَدِ اسْتَمْسَكَ بِالْعُرْوَةِ الْوُثْقَىَ لاَ انفِصَامَ لَهَا وَاللّهُ سَمِيعٌ عَلِيمٌ

‘দ্বীনের (ধর্ম বা জীবন ব্যবস্থার) ব্যাপারে কোনো জবরদস্তি বা বাধ্যবাধকতা নেই। নিসন্দেহে হেদায়াত গোমরাহী থেকে পৃথক হয়ে গেছে। এখন যারা গোমরাহকারী ‘তাগুত’দের মানবে না এবং আল্লাহতে বিশ্বাস স্থাপন করবে, সে ধারণ করে নিয়েছে সুদৃঢ় হাতল যা ভেঙে যাবার নয়। আর আল্লাহ সবই শুনেন এবং জানেন’। (সূরা : বাকারা, আয়াত : ২৫৬)

মহান রাব্বুল আলামিন আল্লাহ তায়ালা মুসলিম উম্মাহকে পবিত্র কোরআনের নির্দেশনা মেনে চলার তাওফিক দান করুন। আমিন।

সংবাদটি শেয়ার করুন-
  • 190
  • 121
  • 90
  • 79
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    480
    Shares


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

ইনভেষ্টিগেশান নিউজ

🚑️ বিশ্বে করোনা ভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
৫২৯,৬৮৭
সুস্থ
৪৭৪,৪৭২
মৃত্যু
৭,৯৫০
সূত্র: আইইডিসিআর

বিশ্বে

আক্রান্ত
৯৫,৪২৯,৬৬০
সুস্থ
৫২,৩৮৫,৩৬৪
মৃত্যু
২,০৩৮,৮০৯
রাজশাহীতে সার্জেন্টকে হামলার প্রধান আসামী বেলাল গ্রেফতার

রাজশাহীতে সার্জেন্টকে হামলার প্রধান আসামী বেলাল গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিনিধি,উত্তরবঙ্গ প্রতিদিন :: রাজশাহীতে সার্জেন্ট বিপুল ভট্টাচার্যর উপরে হামলাকারী... বিস্তারিত→

© All rights reserved © 2016-2021 24x7upnews.com