admin
২১ জানুয়ারী, ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৭:০১ অপরাহ্ন
  • No Comments

    ২০ জেলেকে ধরে নিয়ে নির্যাতনের পর ছেড়ে দিল মিয়ানমার বঙ্গোপসাগর

    থানা প্রতিনিধি,উত্তরবঙ্গ প্রতিদিন:: বঙ্গোপসাগর থেকে বাংলাদেশি ২০ জেলেকে তুলে নিয়ে যাওয়ার পর তাদের নির্যাতন করে ছেড়ে দিয়েছে মিয়ানমারের নৌবাহিনী। কক্সবাজারের সেন্টমার্টিন দ্বীপের কাছে চারটি বোটে করে মাছ ধরার সময় এসব জেলেকে তুলে নিয়ে যায় তারা । বুধবার সকাল ১১টার দিকে বঙ্গোপসাগরের সীতাপাহাড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এসব জেলের সবার বসতি শাহপরীর দ্বীপে।

    টেকনাফ উপজেলার সাবরাং ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য মোহাম্মদ নূরুল আমিন বলেছেন, যে চারটি বোটে করে জেলেরা মাছ ধরছিলেন তার একটির মালিক কবির মাঝির ছেলে আমির হোসেন। একটির মালিক মোহাম্মদ হোসেনের ছেলে আবুল বাশার ওরফে বাইলিয়া। আরেকটি বোটের মালিক মকবুল আহমেদের ছেলে অলি আহমেদ। অন্য একটির মালিক আমির হোসেনের ছেলে আমিরুল ইসলাম।ইউপি সদস্য মোহাম্মদ নূরুল আমিন জানান, ওই বোটগুলোর মালিকরা তাকে ফোন করে এ বিষয়ে অবহিত করেছেন। জেলেদের আটক করার পর মিয়ানমারের নৌবাহিনীর সদস্যরা প্রহার করে এবং তিনটি বোট থেকে মাছধরা জাল ছিনিয়ে নেয়।

    বিজিবির টেকনাফ-২ ব্যাটালিয়ানের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল ফয়সল হাসান খান জানান, বুধবার রাত ১২টার পর সেই জেলেরা ছাড়া পেয়ে টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপে নিজেদের বাড়িতে ফিরেছেন। টেকনাফের সাবরাং ইউনিয়নের শাহপরীর দ্বীপের স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও লোকজন অভিযোগ করেছেন, মিয়ানমারের নৌবাহিনী ওই ২০ জেলেকে ছেড়ে দেয়ার আগে শারীরিক নির্যাতন চালিয়েছে।

    এর আগে গত ১০ই নভেম্বর মিয়ানমারের বর্ডার গার্ড পুলিশের সদস্যরা টেকনাফ উপজেলার নাফ নদী থেকে বাংলাদেশি ৯ জেলেকে তুলে নিয়ে যায়। এরপর বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের সঙ্গে ফ্লাগ বৈঠকের মাধ্যমে ২৩ দিন পর তাদেরকে ফিরিয়ে দেয় মিয়ানমার।

    সংবাদটি শেয়ার করুন-
    • 30
    • 29
    • 24
    • 21
    •  
    •  
    •  
    •  
    •  
    •  
    •  
    •  
      104
      Shares

    আপনার গুরুত্বপূর্ন মতামত দিন