রাজশাহীতে মহামারী মোকাবেলায় মানতে হবে আরো বিধি নিষেধ

রাজশাহীতে মহামারী মোকাবেলায় মানতে হবে আরো বিধি নিষেধ

নিজস্ব প্রতিবেদক। উত্তরবঙ্গ প্রতিদিন –রাজশাহীতে আবারো ঘরের বাইরে অবস্থান করার সময় কমল। তবে বেড়েছে বেশ কিছু নিষেধাজ্ঞা। এবার সন্ধা ৭টার পরিবর্তে বিকেল ৫টা থেকে বিধিনিষেধ শুরু হবে অর্থাৎ বিকেল ৫টার মধ্যে মহানগরীর সব দোকান-পাট ও মানুষের চলাচল বন্ধ করতে হবে। তবে জরুরি পরিষেবা এই বিধি-নিষেধের আওতামুক্ত থাকবে বলে জানা গেছে।

রোববার (৬ জুন) বিকেলে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে রাজশাহীর করোনা পরিস্থিতি নিয়ে জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

জেলা প্রশাসন, স্বাস্থ্য বিভাগ, রাজশাহী সিটি করপোরেশনের (রাসিক) মেয়র, রাজশাহী সিভিল সার্জন, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের পরিচালক ও ১৪ দলের নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে করোনা-সংক্রান্ত জরুরি সভাটি সম্পন্ন হয়। সভা শেষে রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন সাংবাদিকদের সভার সিদ্ধান্তের বিষয়টি অবগত করেন।

মেয়র লিটন বলেন, সোমবার (৭ জুন) থেকে বিকেল ৫টা থেকে পরের দিন ভোর ৬টা পর্যন্ত সব দোকান-পাট ও বিপণি-বিতানসহ অপ্রয়োজনীয় ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে। একই সঙ্গে লোকজনের চলাচল বন্ধ থাকবে। তবে জরুরি পরিষেবাগুলো চালু থাকবে।

তিনি বলেন, সব বন্ধ করে দিলে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের সংখ্যা বাড়বে। মানুষের জীবন-জীবিকাও দেখতে হবে। বিশেষ করে আমচাষিদের ব্যাপক ক্ষতি হবে। শুধু জীবিকা দেখলেই চলবে না, মানুষের জীবনটাও বাঁচাতে হবে। সবকিছু বিচার বিবেচনা করে চলমান বিধি-নিষেধের সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে অনুপ্রবেশ ঠেকানোর বিষয়ে রাসিক মেয়র বলেন, ‘পশ্চিমের তিনটি থানা গোদাগাড়ী, দামকুড়া ও মোহনপুরের থানাগুলো বিশেষ নজর রাখতে হবে। যাতে অনুপ্রবেশ না ঘটতে পারে। রাজশাহীর করোনা পরিস্থিতি আরও ৩ থেকে ৫ দিন দেখব। এর পর যদি করোনা পরিস্থিতির উন্নতি না হয় তবে পরবর্তী সিদ্ধান্ত আবারো জানানো হবে।’

বিধি-নিষেধ প্রতিপালনে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে মেয়র বলেন, ‘এবারের বিধি-নিষেধ খুব কড়াকড়িভাবে পালন করতে হবে। ৫টা মানে ৫টায় বন্ধ করতে হবে, ৬টা মানে ৬টায় করতে হবে। কোনো প্রয়োজন ছাড়া কেউ বাইরে থাকলে তাকে কারণ দর্শাতে হবে, অন্যথায় তার বিরুদ্ধে কঠিন আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিলের সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন- বিভাগীয় কমিশনার হুমায়ুন কবীর, ডিআইজি আব্দুল বাতেন, পুলিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক, পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন, সিভিল সার্জন ডা. কাইয়ুম তালুকদার, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস প্রমুখ।

সংবাদটি শেয়ার করুন-
  • 223
  • 121
  • 109
  • 101
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    554
    Shares

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।