রাজশাহী লক্ষিপুর মাইক্রোষ্টান্ডেই বিক্রি হতো টাপেন্টাডল

রাজশাহী লক্ষিপুর মাইক্রোষ্টান্ডেই বিক্রি হতো টাপেন্টাডল মহানগর

ষ্টাফ রিপোর্টার, উত্তরবঙ্গ প্রতিদিন :: সোমবার (৭ জুন) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাজাহারুল ইসলাম।

এর আগে রোববার (৬ জুন) সন্ধ্যা ৭টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের বহির্বিভাগের দক্ষিণ পাশ থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতাররা হলেন- নগরীর রাজপাড়া থানার রামেক হাসপাতাল সাব-ডিপো কোয়ার্টার্সে কর্মরত মো. মকসেদ আলীর ছেলে মো. হামিম (২৭) ও মো. ফারুক (৩০)।

ঘটনা সম্পর্কে ওসি মাজাহারুল ইসলাম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সন্ধ্যা ৭টার দিকে অভিযান চালিয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের বহির্বিভাগের দক্ষিণ পাশে মাইক্রোস্ট্যান্ডের ছাপড়া ঘরের ভেতর থেকে দুই ভাইকে আটক করা হয়। এসম তাদের কাছ থেকে ২১৬ পিস ‘টাপেন্টাডল’ ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়।

আটকদের বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্য আইনে মামলা দিয়ে সোমবার দুপুরে তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, ব্যথানাশক হিসেবে ব্যবহৃত ‘টাপেন্টাডল’ জাতীয় ওষুধকে মাদকদ্রব্য হিসেবে ঘোষণা করে গেজেট প্রকাশ করেছে সরকার। মাদকসেবীরা এ জাতীয় ওষুধকে মাদকের বিকল্প হিসেবে ব্যবহার করায় একে ‘খ’ শ্রেণির মাদকদ্রব্য হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন-
  • 107
  • 84
  • 44
  • 29
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    264
    Shares

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।